মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

ভবিষৎ পরিকল্পনা

পাসপোর্ট সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে নিজের পাসপোর্ট নিজে করার জন্য জনগণের মধ্যে সচেতনতামূলক প্রচারণা চালানো। সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে পাসপোর্ট সংক্রন্ত তথ্য, আলোকচিত্র এবং তথ্যমূলক কার্যক্রম তুলে ধরা। প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার করে সেবার পরিধি বৃদ্ধি করা। বর্তমানে বিদ্যমান পাসপোর্টের মান বৃদ্ধির লক্ষ্যে ইলেকট্রনিক পাসপোর্ট তথা ই-পাসপোর্ট প্রবর্তন, যেখানে আবেদনকারীর কর্ণিয়াসহ হাতের দশ আঙ্গুলের ছাপ ইলেকট্রনিক চিপে সংরক্ষিত থাকবে।ফলে একজন ই-পাসপোর্টধারী ব্যাক্তি বিভিন্ন ট্রানজিট পয়েন্টে স্থাপিত ই-গেইটে ঝামেলাহীনভাবে ইমিগ্রেশন কার্যক্রম সম্পন্ন করতে পারবে।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter